হ্যালোইন কি? জানুন হ্যালোইন ডে’র ইতিহাস সম্পর্কে


what-is-the-halloween-day-history-in-bangla

Image Source : pixabay

যেকোনো উৎসব কিংবা আয়োজন মুখর করে রাখে তরুণ প্রজন্ম । পৃথিবীর চার প্রান্তের এমনই উচ্ছ্বাসমাখা অদ্ভুত উৎসবগুলোর মধ্যে হ্যালোইন অন্যতম । বিশ্বব্যাপী তরুন প্রজন্মের কাছে হ্যালোইন ফেস্টিভ্যালের জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে । প্রতিবছর অক্টোবর মাসের শেষদিন অর্থাৎ, ৩১শে অক্টোবর হ্যালোইন উৎসব পালন করা হয় । এতে সবাই আদি ভৌতিক রূপে সেজে অংশগ্রহণ করে ।

হ্যালোইনের ইতিহাস

বর্তমান হ্যালোইন ডে’র উৎপত্তি হয়েছিল প্রাচীন কেল্টিক(Celtic) ও গ্যালিক(Gaelic) অধিবাসীদের উৎসব ‘সামহাইন’ থেকে । প্রায় দুই হাজার বছর আগে কেল্টরা বসবাস করত এখনকার আয়ারল্যান্ড, যুক্তরাজ্য এবং উত্তর ফ্রান্সের বিভিন্ন অঞ্চলে । পহেলা নভেম্বর বা ১ নভেম্বর তারা নতুন বছর হিসেবে উদযাপন করত । এই দিনটি হলো গ্রীষ্মের শেষ ও শীতকালের শুরু । এবং এর মধ্যেই ফসল কেটে ঘরে তোলার রেওয়াজ ছিল । কারণ এই নতুন বছর আগমনের পর ফসল ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও প্রায়শই মানুষের মৃত্যু ঘটতো । কেল্টরা বিশ্বাস করত যে, নতুন বছরের আগের রাতে জীবিত এবং মৃতদের জগতের মধ্যে কোনো সীমানা থাকে না; মৃতদের আত্মা পৃথিবীতে ফিরে আসে । তাই কেল্টিক পুরোহিতদের মতে ভবিষ্যতে এই অন্যান্য জগতের আত্মার শান্তি ও অপ্রাকৃতিক দুরবস্থা থেকে বাঁচতে ৩১ অক্টোবর রাতে তারা সামহাইন উদযাপন করত । উদযাপন হিসেবে কেল্টিক দেবদেবীদের উদ্দেশ্যে বলি হিসেবে নিজেদের ফসল ও পালিত পশুদের অগ্নিসংযোগ করত; তারা প্রাণীর মাথা এবং চামড়ায় তৈরি পোশাক পরিধান করত । তাছাড়া তারা ঘরের দোরগোড়ায় কিছু খাবার রেখে দিত যাতে ক্ষুধার্ত আত্মারা অসন্তুষ্ট হয়ে তাদের কোনো ক্ষতি না করে ।

এ উৎসব এর শাব্দিক অর্থ হলো ‘পবিত্র সন্ধ্যা (Hallowed evening)’ পরবর্তীতে এটি বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ‘হ্যালোইন (Halloween)’ হিসেবে পরিচিতি লাভ করে এবং এক প্রকার ‘ভুতুড়ে’ রূপ ধারণ করে ।

বর্তমানে হ্যালোইন যেভাবে উদযাপিত হয়

হ্যালোইনের রাত সবাই ভূত, ডাইনি, ড্রাকুলা, ভেম্পায়ারের মুখোশ ও অন্য ধরণের ভৌতিক ছদ্মবেশ ধারণ করে । সাধারণত লোকেরা নাচ, গান, উপহার দেওয়া, বিশেষ খাবার (ক্যান্ডি, কেক) খাওয়া, গেইম খেলা এবং ঘুরা-ফেরা করে থাকে ।

ট্রিক বা ট্রিট (Trick or Treat)

হ্যালোইনে একটি বিশেষ গেইম ‘ট্রিক বা ট্রিট’ খেলার রীতি রয়েছে । বিশেষ করে বাচ্চারা এতে অংশগ্রহণ করলেও বড়রাও এতে অংশগ্রহণ করে থাকে । সূর্যাস্তের পর পরই বাচ্চারা বিভিন্ন ভৌতিক বেশে এক ঘর থেকে অন্য ঘরে গিয়ে ‘ট্রিক বা ট্রিট’ এর জন্য জিজ্ঞাস চায় । ঘরের মালিককে প্রতিউত্তরে দুটির মধ্যে থেকে একটি বা্ছাই করতে হয় । ট্রিট হিসেবে বিশেষ ধরণের ক্যান্ডি দেয় । ট্রিক বাছাই করলে বাচ্চাদের পারফর্ম করতে হয় ট্রিট পাওয়ার জন্য । 


what-is-the-halloween-day-history-in-bangla

Image Source : pixabay

 

এটি সবচেয়ে বেশি ইউরোপ, আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়া মহাদেশের দেশগুলোতে পালন করা হলেও এশিয়ার কিছু দেশ যেমন-চীন, জাপান, হংকং, পিলিপিনস ও সিঙ্গাপুরেও বেশ জনপ্রিয় । তাছাড়া ভারতের কিছু স্থান ও বাংলাদেশে জাতিসংঘ দ্বারা স্বল্প পরিসরে উৎসবটি উদযাপন করে থাকে ।




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ